শিরোনাম :
মুক্তিযোদ্ধাদের স্বপ্নে আবার জ্বলে উঠুক আমাদের বাংলাদেশ ইসলামপুরে এফ এইচ খান বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের শিক্ষাথীদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ ইসলামপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শিক্ষককে মারধর ভোক্তাদের ভিন্নধর্মী ক্যাটারিং অভিজ্ঞতা দিতে হুয়াওয়ের সাথে সোডেক্সো প্রায় ২০০ এর অধিক মৃতের কবর খনন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে জুয়েল ও সহযোগী হিমেল গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত স্যামসাং আনপ্যাকড ইভেন্ট-ওয়েলকাম টু দ্য এভরিডে এপিক শহিদ মিনারের দাবীতে ইসলামপুরে ৯৭ব্যাচের মানববন্ধন এমদাদুল হক খান চান স্যার স্মৃতি ফাউন্ডেশনের শীতবস্ত্র বিতরণ নৌকা হলো উন্নয়ন ও ভাগ্য পরিবর্তনের প্রতিক,ব্যক্তিকে নয় নৌকাকে ভালোবাসি


টেকনাফে অপহরণকারী ভেবে পুলিশের গাড়িতে হামলা,গুলিতে যুবক নিহত

বেলাল আজাদ, কক্সবাজার প্রতিনিধি :: কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের গুলিতে খোরশেদ আলম (২২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের মিঠাপানির ছাড়া এলাকার গোলাম হোছনের ছেলে।

পুলিশের ভাষ্য, মাদক মামলায় আটক ব্যক্তিকে ছিনিয়ে নেওয়ার সময় দুই পক্ষের গোলাগুলিতে ওই যুবক নিহত হন। পরিবারের দাবি, অপহরণকারী ভেবে পুলিশের গাড়ি আটকাতে গিয়ে পুলিশের ছোড়া গুলিতে খোরশেদ নিহত হয়েছেন।

৫ জানুয়ারী (মঙ্গলবার) দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মিঠাপানিরছড়া বাজার এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হন।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি হাফিজুর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাতে মাদক মামলাসহ একাধিক মামলার পলাতক আসামি শামসুল আলমকে আটক করে পুলিশ। তাকে থানায় নিয়ে আসার পথে হাবিরছড়া এলাকায় তার লোকজন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ব্যারিকেড দিয়ে শামসুকে ছিনিয়ে নিতে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পুলিশও আত্মরক্ষায় পাল্টা গুলি ছোড়ে।

এ সময় দুই পক্ষের গোলাগুলির ঘটনায় খোরশেদ আলম গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। তবে সে কার গুলিতে মারা গেছে সেটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আটক শামসুল আলম একজন শীর্ষ মাদক কারবারি। এ ছাড়া গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যাওয়া খোরশেদ আলমের বিরুদ্ধেও থানায় অর্থপাচার ও মাদকের দুটি মামলা রয়েছে।

ওসি আরো জানান, নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তার ভাই একাধিক মামলার আসামি আটক শামসুল আলমকে থানায় এনে আদালতে প্রেরণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

নিহত খোরশেদ আলম ও আটক শামসুল আলমের ভাই শাহীন আলমের দাবি, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের রাজারছড়া এলাকায় একটি নাইট মিনিবার ফুটবল টুর্নামেন্টের খেলা দেখতে গিয়েছিল ভাই শামসুল আলম। সেখান থেকে পুলিশ তাকে আটক করে। কিন্তু আমাদের কাছে খবর পৌঁছে কে বা কারা ভাইকে সিএনজিতে তুলে নিয়ে যাচ্ছে।

এ খবর শুনে অপর ভাই খোরশেদসহ লোকজন মিঠাপানির ছড়া বাজার এলাকায় সড়ক অবরোধ করে গাড়িটি আটকানোর চেষ্টা করে। এ সময় গাড়ির ভেতর থেকে গুলি চালালে খোরশেদ আলম ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হন। পরে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জাকারিয়া মাহমুদ বলেন, গুলিবিদ্ধ এক যুবককে হাসপাতালে নিয়ে আসে। তার বুকের বাঁ পাশে গুলির আঘাত রয়েছে। তবে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগে তার মৃত্যু হয়। আহত তিন পুলিশ সদস্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কক্সবাজারে পাঠানো হয়েছে।

A House of M.R.Multi-Media Ltd
Design & Development By ThemesBazar.Com