শিরোনাম :
চান্দিনায় গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন ১৯ ডিসেম্বর প্রেমিকের আত্মহত্যার ৩ দিন পর প্রেমিকার আত্মহত্যা জামালপুর ৪ ডিসেম্বর থেকে শত্রুমুক্ত অপু-নিরবরা শুটিং শেষ না করে ফিরে এলেন একই রোল নিয়ে যাবে পরের ক্লাসে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা মরিচা ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রী’র প্রকল্প আশ্রয়ন-২ এর আয়তায় ছিন্নমুল গৃহহীন পরিবার কে পুনর্বাসন মাগুরায় মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন সুনামগঞ্জ পৌরসভায় ১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে পৌর পানি শোধনাগারের উদ্বোধন বীরগঞ্জের ঝাড়বাড়ী গড়ফতু ডাঙ্গায় মহিলা মহিলায় দাঙ্গা থানায় স্বর্নলংকার ছিনতাইয়ের অভিযোগ।


দেশে ফিরলেন সাকিব

যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। গতকাল দিবাগত রাত ২টায় কাতার এয়ারলাইন্সে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পা রাখেন সাকিব।

আগামী ২৩ নভেম্বর থেকে শুরু হবার কথা রয়েছে বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট। এ দিয়েই মাঠে ফিরবেন তিনি। তার আগে ফিটনেস পরীক্ষা দিতে হবে সাকিবকে। আগামী ৯ নভেম্বর তার ফিটনেস পরীক্ষা দেয়ার সূচি রয়েছে। সাকিব ছাড়া আরও ১১২ জন ক্রিকেটারকেও ফিটনেস পরীক্ষা দিতে হবে।

দেশে ফিরে সাংবাদিকদে সাকিব বলেন, ‘আপনাদের দেখে ভালো লাগছে, সবাই এখানে। এবার যখন দেশে এসেছি একটা স্বস্তি নিয়ে এসেছি। এর আগে যখন এসেছি, তখন তো স্বস্তিতে ছিলাম না। কিন্তু এখন সে জায়গা থেকে অনেক মুক্ত। এখন আমার দায়িত্ব হচ্ছে, সবার এই ভালোবাসা, দোয়া ও সমর্থনের প্রতিদান দেয়া। চেষ্টা থাকবে আরও বেশি উন্নতি করার এবং নিজের সেরা পারফরম্যান্সকে যেন প্রদর্শন করতে পারি।

তিনি আরও বলেন, ‘সবাইকে ধন্যবাদ, সমর্থন দেওয়ার জন্য। আমি চেষ্টা করবো যেন এই সমর্থন-ভালোবাসার প্রতিদান যেন দিতে পারি।’

ম্যাচ ফিক্সিংএ জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় একবছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ ছিলেন সাকিব। গত ২৯ অক্টোবর তার নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়।

তাই এখন আবারও ক্রিকেটে ফিরতে প্রস্তুত সাকিব। এক বছর ক্রিকেট থেকে দূরে থাকাটা তার পক্ষে সহজ ছিল না বলে সম্প্রতি নিজের ইউটিউব চ্যানেলে বলেছেন সাকিব।
নিজের ইউটিউব চ্যানেলে সমর্থক ও সাংবাদিকদের কাছ থেকে বিভিন্ন প্রশ্ন নিয়েছেন সাকিব।

তিনি বলেন, ‘আমি যে ধরনের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছি, তার জন্য আমি দুঃখিত ও অনুতপ্ত। আমি আমার জীবন থেকে অনেক বড় শিক্ষা নিয়েছি। আমার এমন ভুল করা উচিত হয়নি। তাই আমি সবাইকে অনুরোধ করবো এ ধরণের ভুল যেন কোন খেলোয়াড় না করে। যখনই কেউ এই ধরণের পরিস্থিতির মুখোমুখি হবে, যখনই কারও সাথে জুয়াড়িরা যোগাযোগ করা হবে, তার উচিত হবে এটি আইসিসির কাছে রিপোর্ট করা।’

নিষেধাজ্ঞায় অবিশ্বাস সৃষ্টি হয়েছে কি-না, এমন প্রশ্নও শুনতে হয়েছে সাকিবকে। এ ব্যাপারে সাকিব বলেন, ‘এটি খুবই কঠিন প্রশ্ন। আসলে কার মনে কি আছে, তা বলাও কঠিন। সন্দেহ জাগতে পারে, অবিশ্বাস দেখা যেতে পারে, আমি কখনোই তা অস্বীকার করতে পারি না। তবে সকলের সাথেই আমার নিয়মিত যোগাযোগ ছিলো, সেখানে যা কথা হয়েছিলো, তাতে আমি তা অনুভব করি না। আমি আশা করি, এই জায়গা কোন সমস্যা হবে না।’

আগের মতো সবার বিশ্বাস নিয়ে মাঠে নামতে সক্ষম হবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সাকিব। তিনি জানান, ‘আমি বিশ্বাস করি, তারা আমাকে আগে যেভাবে বিশ্বাস করত, এখনো সেভাবেই করবে। তবে অবিশ্বাস করতেই পারে, এটা আসলে অস্বাভাবিক কিছু না।

মনের মধ্যে এমন সন্দেহ জাগতেই পারে এবং সেটা নিয়ে আসলে আফসোসের কিছু নেই। তবে আমি মনে করি তারা আমার প্রতি একই বিশ্বাস রাখবে।’
এর আগে, গত অক্টোবরে শ্রীলংকা সিরিজকে সামনে রেখে গত ২ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরেছিলেন সাকিব। ঐ সময় বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মোহাম্মদ সালাউদ্দিন ও নাজমুল আবেদিন ফাহিমের অধীনে চার সপ্তাহের অনুশীলন ক্যাম্প সম্পন্ন করেন তিনি। অনুশীলন পর্বটি একেবারে রুদ্ধদার অবস্থায় হয়েছিলো।

A House of M.R.Multi-Media Ltd
Design & Development By ThemesBazar.Com