শিরোনাম :
পোস্ট-কোভিড থেকে সেরে উঠা রোগীদের জন্য নিয়ে এলো আশার আলো এভারকেয়ার হসপিটাল,ঢাকা ফরিদগঞ্জে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ সরকারি চাকরি এবং কলেজে ভর্তি ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করা হোক – এ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি সরিষাবাড়ীতে উদার সমবায় সমিতির টাকা ফেরত দিচ্ছে গ্রাহকদের লা মেরিডিয়ান ঢাকার নতুন শেফ মারুফ আহমেদ হাসপাতালের মালিক কর্তৃক এক তরুণী শ্রমিক ধর্ষণের শিকার মাগুরায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেয়ে মরতে চান ফালান মিয়া এমসি কলেজে গণধর্ষণের প্রতিবাদে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুঁকে নির্যাতন,সহোদর ভাই সহ স্কুল শিক্ষক জেল হাজতে


পাইকগাছা উপজেলা উপ-নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নিয়ে জল্পনা-কল্পনা

ইমদাদুল হক, পাইকগাছা খুলনা॥
পাইকগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হতে ইচ্ছুক তারা প্যানা ,গনসংযোগ, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ নানা ধরনের প্রচার প্রচারনা চালাচ্ছেন।

পাইকগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মোহাম্মদ আলীর মৃত্যুর পর সম্ভাব্য উপ-নির্বাচন নিয়ে ব্যাপক জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। কে হবেন উপজেলা নির্বাচনে নৈাকার কান্ডারী। অনেকে শুরু করেছেন গণসংযোগ। আবার কেউ কেউ মননয়ন পেতে চেয়ে আছে উপর মহলের সিদ্ধান্তের উপর। তবে নির্বাচনের দিন এখনও চুড়ান্ত হয়নি। নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হতে ইচ্ছুক সম্ভাব্য প্রার্থীরা প্রচার প্রচারনায় মাঠে নেমে পড়েছে।

১০টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা নিয়ে পাইকগাছা উপজেলা গঠিত। গত ৩১ মার্চ ২০১৯ তারিখে উপজেলা নির্বাচনে গাজী মোহাম্মদ আলী আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হন। এ নির্বাচনে একই দলের ৩জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ১৭ জুলাই ২০২০তারিখে উপজেলা চেয়ারম্যান করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেলে উপজেলা চেয়ারম্যানের পদটি শূন্য হয়।

আগামী উপ-নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের কে হবেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী। এরপরই শুরু হয় সম্ভাব্য প্রার্থী ও উপ-নির্বাচন নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে জল্পনা-কল্পনা। ইতোমধ্যে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন, উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আনোয়ার ইকবাল মন্টু। তার পিতা সাবেক এমএনএ শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ গফুর। উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সমীরণ সাধু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক শেখ কামরুল হাসান টিপু, তিনি শহীদ মুক্তিযোদ্ধা শেখ মহতাব হোসেনের (মনি মিঞা) পুত্র।

তিনি আওয়ামীলীগে যোগদান করার পর থেকে দলের গ্রহন যোগ্য ব্যাক্তি হিসাবে ভূমিকা রেখে চলেছেন। উপজেলা আ’লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ রশীদুজ্জামান মোড়ল, সিপিবি থেকে আওয়ামীলীগে যোগদান করেন।

আ’লীগ জেলা সদস্য শেখ মনিরুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এ্যাড. শেখ আবুল কালাম আজাদ ও শেখ ফরহাদ উজ্জামান তুষার। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলী পেশাজীবী সমন্বয় উপকমিটির সাবেক সদস্য। মনোনয়ন প্রত্যাশি সম্ভাব্য প্রার্থীদের অনেকেই ইতোমধ্যে উপ-নির্বাচন নিয়ে শুরু করেছেন গণসংযোগ, কেউ কেউ বিভিন্ন স্থানে মতবিনিময় সভা ও সামাজিক অনুষ্ঠানে প্রার্থী হওয়ার জন্য ভোটারদেও কাছে দোয়া প্রার্থনা করছেন।

বাম গনতান্ত্রীক জোটের সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে এ্যাড. প্রশান্ত কুমার মন্ডলের নাম শোনা যাচ্ছে। তবে বিএনপি ও জাতীয় পার্টিও কোন প্রার্থীর নাম এখনো শোনা যায়নি। এখন সবাই চেয়ে আছে উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষনার অপেক্ষায়।

A House of M.R.Multi-Media Ltd
Design & Development By ThemesBazar.Com