শিরোনাম :
পোস্ট-কোভিড থেকে সেরে উঠা রোগীদের জন্য নিয়ে এলো আশার আলো এভারকেয়ার হসপিটাল,ঢাকা ফরিদগঞ্জে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ সরকারি চাকরি এবং কলেজে ভর্তি ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করা হোক – এ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি সরিষাবাড়ীতে উদার সমবায় সমিতির টাকা ফেরত দিচ্ছে গ্রাহকদের লা মেরিডিয়ান ঢাকার নতুন শেফ মারুফ আহমেদ হাসপাতালের মালিক কর্তৃক এক তরুণী শ্রমিক ধর্ষণের শিকার মাগুরায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেয়ে মরতে চান ফালান মিয়া এমসি কলেজে গণধর্ষণের প্রতিবাদে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুঁকে নির্যাতন,সহোদর ভাই সহ স্কুল শিক্ষক জেল হাজতে


এস এম রুবেল রানা’র “ জল কাদায় ”

বিনোদন ডেস্ক :: বরিশালের মনোরম গ্রামীন পটভূমিতে চিত্রধারন শেষ হয়েছে টেলিফিল্ম “জল কাদায়”।

একটা সময় প্রেমকে সমাজ বড় অপরাধ হিসাবে দেখতো, সময়ের সাথে সাথে মানুষের মনের পরিবর্তন হয়ে পরিবর্তন হয়েছে সমাজেরও। এখন প্রেম ভালোবাসাকে স্বাভাবিক ভাবেই মেনে নেওয়া হয়, তারপরও সমাজ থেকে এখনও বৈষম্য এখনও দূর হয়নি।

অর্থ বিত্তের মানুষেরা ক্ষমতাশালী হয় আর এই ক্ষমতাশালীরা অনেকাংশেই দাম্ভিক হয়, তারা অর্থহীন মানুষদের উপর হুকুম চালাতে চায়। সেখানে যদি ধনী গরিবের প্রেম হয়ে যায় তাহলে সেটাকে সহজে ধনীরা মেনে নিতে পারে না। কিন্তু জল থাকলেতো সেখানে কাঁদা হবেই ঠিক, তেমনি বাধা যেখানে যত বেশী প্রেম সেখানে অবিচল।

কোনো বাঁধায় সেখানে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারে না। আবার যার শুরু আছে তার শেষও আছে। জন্মের পরই মৃত্যু, যেমন নিশ্চিত হয়ে যায় ঠিক তেমনি অর্থ ও ক্ষমতারও পালাবদল হয়।

ক্ষমতাশালীদের এক সময় ক্ষমতার অপব্যাবহরের একটা সময় কঠিন পরিনতির মুখমুখি দাঁড়াতে হয়। জয় হয় প্রেম ভালোবাসার। ঠিক যেমন জলের সাথে কাদায় যেমন মিলন হয়।

বরিশালে স্যুটিং প্রসঙ্গে পরিচালক বলেন, আসলে “জল কাদায়” টেলিফিল্মের গল্প যে ভাবে আমি বলতে চেয়েছি সেটির সঠিক রুপ দিতে বরিশালের লোকেশনটিই আমার প্রয়োজন ছিল। গল্পের প্রয়োজনেই বরিশালে চিত্রধারন করা।

“জল কাদায়” টেলিফিল্মটিতে অভিনয় করেছেন শিশির আহমেদ, ইমু শিকদার, চাষী আরিফুল ইসলাম, তমাল মাহবুব, নিলা ইসলাম সহ আরো অনেকে।

এস এম রুবেল রানা’র গল্প ভাবনা ও পরিচালনায় নাজিম হামিদ এর রচনায় টেলিফিল্মটি প্রযোজনা করেছেন আতৈচি ভিশন ইন্টার্নেশনাল টেলিফিল্মটির সম্পাদনার কাজ চলছে আগামী মাসে প্রচারিত হবে যে কোনো বেসরকারি টিভি চ্যানেলে।

A House of M.R.Multi-Media Ltd
Design & Development By ThemesBazar.Com