বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের প্রতিবাদে গাইবান্ধায় নারী মুক্তি কেন্দ্রের বিক্ষোভ

প্রকাশিত: ১:৪৫ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০২২

বর্তমান খবর,আমিরুল ইসলাম কবির,গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ দেশের মহাসড়কে চলন্ত বাসে ডাকাতি ও নারী যাত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে গাইবান্ধায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৪ আগস্ট বৃহস্পতিবার শহরের ১নং ট্রাফিক মোড়ে এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্র গাইবান্ধা জেলা শাখা। এ সংগঠনের জেলা সভাপতি সুভাসিনী দেবীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য দেন, সংগঠনের জেলা সাধারণ সপাদক সম্পাদক নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী,রাহেলা সিদ্দিকা,কলি রাণী,মাহমুদা বেগমসহ অন্যান্যরা।

বক্তারা বলেন,গত ২ আগস্ট সন্ধ্যায় কুষ্টিয়া থেকে চট্টগ্রাম যাওয়ার পথে ঈগল পরিবহনের বাসে যমুনা সেতুর পশ্চিমপাড়ে সুসংগঠিত একটি ডাকাত দল যাত্রী বেশে গাড়িতে ওঠে। এসময় তারা ২৪/২৫ জন যাত্রীকে জিম্মি করে তাদের টাকা-পয়সা,মোবাইলফোনসহ সবকিছু ছিনিয়ে নেয়। ডাকাতরা যাত্রীদের জিম্মি করে তাদের মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করে।

শেষে বাসে থাকা নারী যাত্রীদের উপর পাশবিক নির্যাতন চালিয়ে প্রায় তিন ঘন্টা ধরে ডাকাতদল তাদেরকে উপর্যুপরি গণধর্ষণ করে।

বক্তারা বলেন,ঢাকা-সিরাজগঞ্জ মহাসড়কের এই ঘটনা বলে দেয়,আমাদের দেশের হাইওয়ে পুলিশের দায়িত্বশীলতার প্রমাণ। হাইওয়ে পুলিশ একদিকে ব্যস্ত থাকে চাঁদা তোলার কাজে আর অন্যদিকে সাধারণ মানুষের জানমালের দায়িত্ব থাকে ডাকাত,নির্যাতকদের হাতে। আজ সমাজের সর্বত্রই চলছে লুটপাটের সংস্কৃতি,কোথাও নিরাপত্তা নেই। অবিলম্বে সৃষ্ট ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানান বক্তারা। সেইসাথে নারী-শিশু নির্যাতন- ধর্ষণ- হত্যা-মাদক-জুয়া পর্ণোগ্রাফি বন্ধসহ সাম্প্রদায়িকতা- মৌলবাদের বিরুদ্ধে গণ আন্দোলন গড়ে তোলার আহবানও জানান বক্তারা।