লক্ষ্মীপুরে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র ও লুন্ঠিত মালামালসহ ডাকাত দলের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

প্রকাশিত: ২:১১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৬, ২০২২

বর্তমান খবর,লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের রাণীরহাট এলাকায় একটি ডাকাতির ঘটনায় অভিযান চালিয়ে ডাকাত দলের সদস্য, দেশীয় অস্ত্র ও লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার করেন সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক মো. কাওসার উজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্স। গত সোমবার বিকেল ৫টার দিকে নিজ কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার মো. মাহফুজ্জামান আশরাফ।

গ্রেফতারকৃত ডাকাত দলের ৪ সদস্য হলেনঃ
(১) সদর উপজেলার পশ্চিম লক্ষ্মীপুর গ্রামের লুৎফুর রহমানের ছেলে আজাদ ওরফে চশমা আজাদ (৫৮) অন্যতম। তার বিরুদ্ধে হত্যা ও ডাকাতির একাধিক মামলা রয়েছে।
(২)রায়পুর উপজেলার পূর্ব কেরোয়া গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে আলম হোসেন ওরফে খোরশেদ ডাকাত (৪৩)
(৩)সদরের পশ্চিম লক্ষ্মীপুর গ্রামের মৃত সুজা মিয়ার ছেলে মো. টুটুল (৩২)
(৪) চরমন্ডল গ্রামের ওমর ফারুকের ছেলে মিয়াদ হোসেন রাব্বি (২০)।

উদ্ধারকৃত দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রের মধ্যে রয়েছেঃ
লোহার তৈরি ২টি কোরাবারি,
১টি ছেনি,
১টি সেলাই রেঞ্জ,
১টি চাপাতি,
১টি চাইনিজ কুড়াল,
১টি ছোরা ও
১টি স্ক্রু-ড্রাইভার।

পুলিশ সুপার জানান, গত রোববার রাতে রোববার রাতে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের রাণীরহাট এলাকার আবদুল কাদের পাটওয়ারীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এসময় ৯৯৯ নম্বরে কল করে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে ডাকাত দলের সদস্য মিয়াদ হোসেন রাব্বিকে আটক করতে সক্ষম হয়। এরপর তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে লুন্ঠিত পাঁচ ভরি স্বর্ণালংকারসহ ডাকাত আজাদকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আরও ২টি স্থানে অভিযান চালিয়ে ডাকাতিতে ব্যবহৃত দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রসহ ডাকাত দলের সদস্য আলম ওরফে খোরশেদ এবং টুটুলকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও নিশ্চিত করেছেন পুলিশ সুপার মো. মাহফুজ্জামান আশরাফ।